FeniNews

ছাগলনাইয়া আজিজিয়া মাদ্রাসা মসজিদে তাবলীগ নিষিদ্ধ !


মোহাম্মদ শেখ কামাল, নিজস্ব প্রতিবেদক (ছাগলনাইয়া) : ছাগলনাইয়া আজিজিয়া মাদ্রাসা জামে মসজিদে তাবলীগ জামায়াতের সকল প্রকার কার্যক্রম নিষিদ্ধ করা হয়েছে।
১৬ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় এ তথ্য নিশ্চিত করেন ছাগলনাইয়া আজিজিয়া মাদ্রাসার মোহতামেম মাওলানা মোঃ রুহুল আমিন।
মাওলানা রুহুল আমিন জানান, ১৫ সেপ্টেম্বর সকালে তাবলীগ (সাদ গ্রুপ) এর একটি জামায়াত আসে ছাগলনাইয়া আজিজিয়া মাদ্রাসা জামে মসজিদে। ১৬ সেপ্টেম্বর সকাল ৭টা থেকে তাবলীগ জামায়াতের গ্রুপটিকে মসজিদের ভিতর চতুর্দিক থেকে ঘেরাও করে রাখে মাদ্রাসার উত্তেজিত একদল ছাত্র। ফলে সংঘর্ষ এড়াতে শিক্ষকদের জরুরী বৈঠক ডেকে ছাগলনাইয়া আজিজিয়া মাদ্রাসা জামে মসজিদে তাবলীগ জামায়াতের উভয় গ্রুপের (সাদ গ্রুপ ও হেফাজত গ্রুপ) সকল প্রকার কার্যক্রম নিষিদ্ধ ঘোষনা করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।
এদিকে তাবলীগ জামায়াতের (সাদ গ্রুপ) মুরুব্বী একরামুল হক চৌধুরী, আবু তাহের মজুমদার ও নাদিম ভাই বলেন, ১২সদস্যের একটি জামায়াত ছাগলনাইয়া আজিজিয়া মাদ্রাসা জামে মসজিদে এসে শান্তিপূর্নভাবে তাদের দাওয়াতী কাজ করছিল। ১৬ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার সকাল ৭টা থেকে আজিজিয়া মাদ্রাসার ৩০/৪০জন উত্তেজিত ছাত্র মাদ্রাসা গেইটে তালা লাগিয়ে দিয়ে তাদেরকে মসজিদের ভিতরে ঘেরাও করে রাখে এবং নানা ধরনের কুরুচিপূর্ণ গালমন্দ করে লাঞ্চিত করে। একপর্যায় মসজিদে বিদ্যুতের লাইন বিচ্ছিন্ন করে দেয় উত্তেজিত ছাত্ররা। এসময় ছাত্ররা তাবলীগ জামায়াতের লোকদেরকে লক্ষ করে বলে এটি এই মহল্লার মসজিদ নয় এটি আমাদের মসজিদ এখানে আমরা যা চাইব তা হবে। তোমরা দ্রুত এই মসজিদ ছেড়ে চলে যাও। মাদ্রাসার মোহতামিম আমাদেরকে তার অফিসে ডেকে নিয়ে জানান, ছাগলনাইয়া আজিজিয়া মাদ্রাসা জামে মসজিদে তাবলীগ জামায়াতের উভয় গ্রুপের (সাদ গ্রুপ ও হেফাজত গ্রুপ) সকল প্রকার কার্যক্রম নিষিদ্ধ ঘোষনা করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।
ছাগলনাইয়া থানার ওসি মোঃ শহিদুল ইসলাম বলেন মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষের ফোন পেয়ে বিশৃংখলা এড়াতে নিয়মিত টহলে থাকা পুলিশ পাঠানো হয়েছে ঘটনাস্থলে।
এসআই মোঃ সেলিম বলেন, ছাগলনাইয়া আজিজিয়া মাদ্রাসা জামে মসজিদে তাবলীগ জামায়াতের একটি দল ও মাদ্রাসা ছাত্ররা মুখোমুখি অবস্থানে ছিল। ওসি সাহেবের নির্দেশে সেখানে গিয়েছি পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখার জন্য।

ছাগলনাইয়া পৌরসভার মেয়র এম মোস্তফা বলেন, মসজিদ আল্লাহর ঘর। বিভিন্ন মসজিদে অবস্থান নিয়ে তাবলীগ জামায়াত শান্তিপূর্ণভাবে দাওয়াতী কাজ করছে বিশ্বব্যাপী। মসজিদে যদি তাদেরকে নিষিদ্ধ করা হয় তাহলে তারা যাবে কোথায় ? মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষের এ সিদ্ধান্ত নেয়া উচিত হয়নি।
এদিকে ছাগলনাইয়া আজিজিয়া মাদ্রাসা জামে মসজিদ থেকে তাবলীগ এর একটি জামায়াতকে বের করে দেয়ায় এবং মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ ওই মসজিদে তাবলীগ জামায়াতের উভয় গ্রুপের (সাদ গ্রুপ ও হেফাজত গ্রুপ) সকল প্রকার কার্যক্রম নিষিদ্ধ ঘোষনা করার সিদ্ধান্ত নেয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে।



প্রকাশঃ শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:১২ অপরাহ্ন



ছাগলনাইয়া পৌর শহরের শরীর চর্চা সংগঠন “ভোরের সাথী” এর উদ্যোগে “স্বাস্থ্য সুরক্ষায়... বিস্তারিত

বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্ট কর্মকর্তা-কর্মচারী কল্যাণ ট্রাস্টের দপ্তর সম্পাদক... বিস্তারিত

ফেনীর মারকায উমর রা.মাদরাসা’র ইন্টারন্যাশনাল হিফজ বিভাগে পড়ুয়া শিক্ষার্থীদের... বিস্তারিত

ছাগলনাইয়ায় দুটি পূজা মন্ডপে হিন্দু সম্প্রদায়ের দরিদ্র মানুষের মাঝে পূজা উপহার... বিস্তারিত

ফেনীর ছাগলনাইয়া পৌরসভার নির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ২নং দক্ষিণ সতর... বিস্তারিত

ফেনীর ছাগলনাইয়া পৌরসভার নির্বাচনী তফসিল ঘোষনা করা হয়েছে। তফসিল ঘোষনার পর পৌরসভার... বিস্তারিত

প্রতিবন্ধী মফিজুর রহমান (৩২) এর উপর হামলার প্রতিবাদে এবং হামলাকারীদের গ্রেফতার ও... বিস্তারিত

ফেনীর ছাগলনাইয়া পৌরসভার নির্বাচনী তফসিল ঘোষনা করা হয়েছে। তফসিল ঘোষনার পর পৌরসভার... বিস্তারিত

ফেনীর ছাগলনাইয়া উপজেলার উত্তর বল্লভপুর গ্রামে জমি কিনে প্রতারনার শিকার হয়ে... বিস্তারিত