FeniNews

মালয়েশিয়া আওয়ামী লীগের আহবায়কের বিরুদ্ধে ২৩ সদস্যের অনাস্থা


নিয়মিত মালয়েশিয়ায় না থাকা, নেতাকর্মীদের মাঝে বিভাজন সৃষ্টি, পদ ভাগাভাগি নিয়ে আর্থিক লেনদেন, সরকার বিরোধী শক্তির সঙ্গে সখ্যতা এমন বেশ কিছু অভিযোগ এনে আহ্বায়ক এম রেজাউল করিম রেজার বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব এনে সংবাদ সম্মেলন করেছে মালয়েশিয়া আওয়ামী লীগে'র নেতৃবৃন্দ। মঙ্গলবার রাজধানী কুয়ালালামপুরের একটি পাঁচ তারকা হোটেলে এ উপলক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পড়ে শোনান দলটি'র যুগ্ন-আহ্বায়ক শাহীন সর্দার।


সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, বাংলাদেশীদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ শ্রমবাজার মালয়েশিয়ায় আওয়ামী লীগে'র পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের প্রতিশ্রুতিতে আহ্বায়ক কমিটি গঠিত হয়েছিলো। তবে অপ্রত্যাশিতভাবে তিন মাসের এ কমিটি দীর্ঘ সাড়ে পাঁচ বছরেও পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করতে পারেনি। উপরন্ত আহ্বায়ক এম রেজাউল করিম রেজা নিজের পদ'কে অপব্যবহার করে নানা সময়ে ফায়দা লুটেছেন যা দলের ভেতরে বিভাজনের সৃষ্টি করেছে। 


এছাড়া এম রেজাউল করিম মালয়েশিয়ায় নিয়মিত থাকেন না। তার মালয়েশিয়ায় থাকার স্থায়ী কোন ভিসাও নেই। স্বপরিবারে ঢাকায় থাকা রেজাউল করিম ভ্রমন ভিসায় বাংলাদেশ থেকে যাতায়াত করেন। স্থায়ীভাবে যারা মালয়েশিয়ায় থাকেন এমন কারো দ্বারা দল পরিচালিত হলে এখানকার প্রবাসীরা উপকৃত  হবে বলে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়।     


স্বেচ্ছাচারিতার মাধ্যমে নানা কর্মকান্ডের জন্য আহ্বায়ক কমিটির ৩১ সদস্যের ২৩ জন-ই রেজাউল করিম রেজার বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাবে একাত্বতা প্রকাশ করেন। একাত্বতা প্রকাশের ভিডিও, অডিও ও স্বাক্ষর প্রমানস্বরুপ উপস্থিত সাংবাদিকদের কাছে হস্তান্তর করা হয়।  একই সঙ্গে সকলের মতামতকে প্রাধান্য দিয়ে রেজাউল করিমের বিরুদ্ধে দলীয় গঠনতন্ত্র অনুযায়ী পদক্ষেপ নেয়ার  জন্য কেন্দ্রের প্রতি জোর দাবি জানানো  হয়। 


সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করা হয়, লেফটেন্যান্ট কর্নেল (অবঃ) ফারুক খান স্বাক্ষরিত যে কমিটি দেয়া হয়েছিলো নানা  সময়ে সেই কমিটি'তে অন্তর্ভুক্তির কথা বলে অর্থ হাতিয়ে নিয়েছেন রেজাউল করিম। এছাড়া পূর্ণাঙ্গ কমিটি'তে বড় পদ পাইয়ে দেয়ার কথা বলে বিভিন্ন সময়ে টাকা নিয়েছেন বলেও অভিযোগ করা হয়। 


সংবাদ সম্মেলনে ১ নং যুগ্ন-আহ্বায়ক অহিদুর রহমান'কে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের লক্ষে দায়িত্ব অর্পনের জন্য প্রস্তাব করা হয়। সংবাদ সম্মেলন শেষে মালয়েশিয়া আওয়ামী লীগ নেতা মকবুল হোসেন মুকুল, হাজী আব্দুল হামিদ জাকারিয়া, মুক্তিযোদ্ধা শওকত হোসেন পান্না, কামাল চৌধুরীসহ বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী আহ্বায়ক কমিটি'র এ সিদ্ধান্ত'কে স্বাগত জানিয়ে অনতিবিলম্বে সকলের অংশগ্রহনে নতুন কমিটি গঠন করে তা কেন্দ্রে উপস্থাপনের আহ্বান জানান। 


একইসঙ্গে নেতৃবৃন্দ ঐক্যবদ্ধ আ.লীগ গড়ার স্বার্থে যারা মালয়েশিয়ায় স্থায়ীভাবে থাকেন তাদের নিয়ে, সবকিছু ভুলে একসঙ্গে পথ চলতে প্রতীজ্ঞাবদ্ধ হন। 


এদিকে সকল অভিযোগ অস্বীকার করে, এ সংবাদ সম্মেলন দলের গঠনতন্ত্র পরিপন্থী বলে মন্তব‌্য করেছেন আহ্বায়ক এম রেজাউল করিম রেজা। এক স্বাক্ষাতাকারে তিনি বলেন, মালয়েশিয়ায় বসে কে কাকে বাদ দিলো, কে কাকে নিলো তাতে কিছু আসে যায় না, দলীয় সভানেত্রী যাকে দায়িত্ব দেবন তিনি-ই দায়িত্ব পালন করবেন।


তবে এ ব্যাপারে আহবায়ক রেজাউল করিম রেজার সাথে কথা বলার জন্য তার মুঠো ফোনে কল দিলেও কল রিসিভ না করায় তার প্রতিক্রিয়া জানা সম্ভব হয়নি । 



প্রকাশঃ বৃহস্পতিবার, ২৪ ডিসেম্বর ২০২০, ০১:২২ অপরাহ্ন



মালয়েশিয়ায় আ.লীগে'র উদ্যেগে বিজয় দিবস... বিস্তারিত

মালয়েশিয়া আওয়ামী লীগের আহবায়কের বিরুদ্ধে ২৩ সদস্যের... বিস্তারিত

মালয়েশিয়া বিএনপি'র উদ্যেগে ৭ই নভেম্বর... বিস্তারিত

দাগনভুঞা প্রবাসী ফোরাম মদিনা আল মুনওয়ারা শাখার মতবিনিময়... বিস্তারিত

আমাদের সবার দ্বায়িত্ব এ উন্নয়নের চাকাকে আরো গতিশীল করাঃ রাষ্ট্রদূত শহীদুল... বিস্তারিত

মালয়েশিয়ায় নিজের বলার মতো একটা গল্প প্লাটফর্মের হাজার তম দিন... বিস্তারিত

‘ইনডেমনিটি’ নাটক প্রচারের প্রতিবাদ জানিয়েছে মালয়েশিয়া... বিস্তারিত

মালয়েশিয়া আওয়ামী লীগের উদ্যেগে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন... বিস্তারিত

দাগণভুঞা প্রবাসী ফোরাম কুয়েত শাখার পরিচিতি... বিস্তারিত