FeniNews

সোনাগাজীতে বিদ্যুতের ভেলকিবাজিতে অতিষ্ঠ ৬৫ হাজার গ্রাহক



নিজস্ব প্রতিনিধি, সোনাগাজী | ইব্রাহিম সোহাগ

বিদ্যুতের ভেলকিবাজিতে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে সাগর উপকুলীয় উপজেলা সোনাগাজী পল্লী বিদ্যুতের ৬৫ হাজার গ্রাহক। ২৪ ঘন্টায় ১০ ঘন্টা ও বিদ্যুৎ না পাওয়ার অভিযোগ করেছেন এই অঞ্চলের সাধারণ জনগণ। 

স্থানীয়রা জানায়- সোনাগাজীর বেশ কয়েকটি ইউনিয়নে শতভাগ বিদ্যুতায়নের ঘোষণা দেয় সোনাগাজী পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি। আর তাতে জনগনের মাঝে সন্তুষ্টি বিরাজ করছিলো। কিন্তু বিদ্যুতের প্রতি মিনিটে কয়েকবার আসা-যাওয়া আবার কয়েক ঘন্টা পর বিদ্যুৎ আসলেও পাঁচ মিনিট পর আবার বিদ্যুৎ বিভ্রাটের কারণে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েন জনগন। আর সামান্য বৃষ্টি হলেতো লোডশেডিং সমস্যা গিয়ে চরমে পৌঁছাই।

উপজেলার সর্বত্রই গত কয়েক সপ্তাহ ধরে হঠাৎ করে দিনে রাতে এক ঘণ্টা পর এক ঘণ্টা করে ২৪ ঘণ্টায় এক এক ফিডে প্রায় ১০ ঘণ্টা করে দুই ফিডে প্রায় ২০ ঘণ্টার মত পল্লী বিদ্যুৎ লোডশেডিং দিচ্ছে। তবে এতো লোডশেডিং দিয়েও তা মানতে না রাজ পল্লী বিদ্যুতের কর্মচারিরা। এই বিদ্যুৎ বিভ্রাটের ফলে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের হাজার হাজার শিক্ষার্থীদের সন্ধ্যার পরে লেখা পড়ায় চরম বিঘ্ন ঘটছে। রাতের বেলায় বিদ্যুৎ না থাকায় প্রচন্ড গরমে শিশুসহ লোকজন ঘুমাতে না পেরে সর্দী কাশি ও মাথাব্যথাসহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হচ্ছে।

বিশেষ করে মোবাইল নির্ভর এই ডিজিটাল যুগে বিদ্যুৎ না থাকায় বিপাকে মোবাইল গ্রাহকেরা। প্রবাসীদের সাথে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন বলে জানান। তাছাড়া বিদ্যুতের পর্যাপ্ত পরিমাণ উৎপাদন না থাকার পরও সোনাগাজীর বিভিন্ন অঞ্চলে নতুন বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদান করে মানুষকে আরো বিপাকে ঠেলে দিচ্ছে বলে জানা যায়।

ভুক্তভোগীরা অভিযোগ করে বলেন, গত কয়েক সপ্তাহে দেশের কোথাও কোন বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্রে বিপর্যয় ঘটেনি। কিন্তু হঠাৎ পল্লী বিদ্যুতের কর্মকর্তারা কৃত্রিমভাবে এ লোডশেডিং সৃষ্টি করেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। উপজেলার প্রায় ৬৫হাজার পল্লীবিদ্যুৎ গ্রাহক লোডশেডিং এর চরম ভেলকিবাজির হাত থেকে বাঁচতে চায়। 

শেখ ফরিদ নামে এক ব্যবসায়ী জানান- দীর্ঘ সময় বিদ্যুত বিচ্ছিন্ন থাকায় চরম ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে পুরো উপজেলার মানুষদের। অধিকাংশ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানই বন্ধ রযেছে। ক্ষতির সমুক্ষিন হচ্ছে পরীক্ষার্থীরাও। ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে হাসাপাতালের রোগীদেরও।

ফেনী পল্লী বিদ্যুত সোনাগাজী জোনাল অফিসের ডিজিএম মহিউদ্দিন মোসাহেদ উল্লাহ জানান- ভারী বর্ষনে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় বৈদ্যতিক তার ও খুটি ক্ষতিগ্রস্ত হওয়া হয়ে থাকে। ফলে ক্ষতিগ্রস্ত লাইন সচল করতে অনেকখানি সময় লেগে যায়। আমরা বিদ্যু বিভ্রাটের বিষয়টি মাথায় রেখে কাজ করছি। আশা করি এই সমস্যা দ্রুত সমাধান লাভ করবে।




প্রকাশঃ রবিবার, ২২ এপ্রিল ২০১৮, ১০:২০ অপরাহ্ন



ফেনীতে ব্যতিক্রমী আয়োজনে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন করলো ইলামিত্র যুব মহিলা... বিস্তারিত

ফেনীতে মিলন মেলা তৈরী হয় দেশী পণ্যের নারী উদ্যোক্তাদের। শনিবার (২৩ জানুয়ারী)... বিস্তারিত

আসন্ন ৩০ জানুয়ারীর ফেনী পৌরসভা নির্বাচনকে ঘিরে ধানের প্রতীক নিয়ে মাঠ চষে... বিস্তারিত

প্রধানমন্ত্রীর সাবেক প্রটোকল অফিসার ও ফেনী ইউনিভার্সিটিরি ট্রাস্টি বোর্ডের... বিস্তারিত

ছাগলনাইয়া পৌর শ্রমিক দলের এক মতবিনিময় সভা ২১জানুয়ারী বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কলেজ... বিস্তারিত

৩০ জানুয়ারী অনুষ্ঠিতব্য পৌরসভা নির্বাচন উপলক্ষে (মঙ্গলবার) সকালে ১০ নং ওয়ার্ডে... বিস্তারিত

আসন্ন ৩০ জানুয়ারি ফেনী পৌরসভা নির্বাচন। এ নির্বাচনকে ঘিরে পৌর এলাকার অলি-গলিতে... বিস্তারিত

ফেনীকে ক্লিন, গ্রিন ও হেলদি সিটি হিসেবে গড়ে তুলতে চান আওয়ামীলীগ সমর্থিত পৌর মেয়র... বিস্তারিত

সোনাগাজী প্রেসক্লাব ২০২১ সালের কার্যকরী পরিষদের নির্বাচনে দৈনিক সকালের সময়... বিস্তারিত